ঢাকা ০৯:৩৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com // দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ অনলাইন ও প্রিন্ট পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৭১১-৩৩৩৮১১, ০১৭৪৪-১২৪৮১৪

ইতালিতে বাড়ছে অবৈধ অভিবাসন, যা বলছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০১:১৮:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ অগাস্ট ২০২৩
  • / 141

গ্রীষ্মের শুরু থেকেই ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধ অভিবাসীর ঢল নামছে ইউরোপে। হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে ইতালি, স্পেন ও গ্রিস। চলতি বছর এ পর্যন্ত প্রায় ৯০ হাজার অভিবাসী ইতালিতে প্রবেশ করেছে। আর গত দেড় বছরে দেশটিতে প্রবেশ করেছে ২১ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি। অবৈধ পথে প্রবেশ করায় ইতালিতে বৈধতার সুযোগ দেখছেন না প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

ইতালির লাম্পদোসায় প্রায় প্রতিদিনই আসছেন বাংলাদেশিসহ বিপুল সংখ্যক অবৈধ অভিবাসী। করোনা মহামারির পর চলতি বছরের গ্রীষ্মে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অভিবাসী এসেছে দেশটিতে। উপকূলে কঠোর নজরদারির পরও ছোট ছোট কাঠের কিংবা প্লাস্টিকের নৌকায় বিপজ্জনকভাবে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে দেশটিতে প্রবেশের চেষ্টা করেন অনেকে। 

গত দেড় বছরে ইতালিতে অবৈধ বাংলাদেশি এসেছেন ২১ হাজার ৭১১ জন। তাদের মধ্যে চলতি বছরের প্রথম ৭ মাসেই ইতালিতে প্রবেশ করেছেন ৬ হাজার ৭২৯ জন বাংলাদেশি। ইতালি ছাড়াও স্পেন এবং গ্রিসেও অবৈধভাবে প্রবেশ করেছেন বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি। মানবিক কারণে এই অবৈধ অভিবাসীদের উদ্ধার করে নেয়া হচ্ছে বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে।

তবে ইতালিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা বলছেন, অবৈধ পথে ইউরোপযাত্রা বন্ধ হওয়া উচিৎ। যারা এভাবে আসছেন তাদের নাগরিকত্ব পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

তারা জানান, গ্রীষ্মে সাগর শান্ত থাকে। এর সুযোগই নিচ্ছেন অবৈধ অভিবাসীরা। ছোট ছোট নৌকায় করে তারা আসছেন ইতালিতে, যা খুবই বিপজ্জনক পথ।

চলতি বছর শুধু ইতালিতেই এসেছেন ৮৯ হাজার ২৫৩ জন অবৈধ অভিবাসী। ইতালি সরকার অবৈধ অভিবাসী বন্ধে এরইমধ্যে বৈধভাবে শ্রমিক আনার ঘোষণা দিয়েছে। যার আওতায় ২০২৫ সাল নাগাদ সাড়ে চার লাখেরও বেশি শ্রমিক ইতালিতে আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এই রকম আরও টপিক

ইতালিতে বাড়ছে অবৈধ অভিবাসন, যা বলছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা

প্রকাশিত সময় ০১:১৮:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ অগাস্ট ২০২৩

গ্রীষ্মের শুরু থেকেই ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে অবৈধ অভিবাসীর ঢল নামছে ইউরোপে। হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে ইতালি, স্পেন ও গ্রিস। চলতি বছর এ পর্যন্ত প্রায় ৯০ হাজার অভিবাসী ইতালিতে প্রবেশ করেছে। আর গত দেড় বছরে দেশটিতে প্রবেশ করেছে ২১ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি। অবৈধ পথে প্রবেশ করায় ইতালিতে বৈধতার সুযোগ দেখছেন না প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

ইতালির লাম্পদোসায় প্রায় প্রতিদিনই আসছেন বাংলাদেশিসহ বিপুল সংখ্যক অবৈধ অভিবাসী। করোনা মহামারির পর চলতি বছরের গ্রীষ্মে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক অভিবাসী এসেছে দেশটিতে। উপকূলে কঠোর নজরদারির পরও ছোট ছোট কাঠের কিংবা প্লাস্টিকের নৌকায় বিপজ্জনকভাবে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে দেশটিতে প্রবেশের চেষ্টা করেন অনেকে। 

গত দেড় বছরে ইতালিতে অবৈধ বাংলাদেশি এসেছেন ২১ হাজার ৭১১ জন। তাদের মধ্যে চলতি বছরের প্রথম ৭ মাসেই ইতালিতে প্রবেশ করেছেন ৬ হাজার ৭২৯ জন বাংলাদেশি। ইতালি ছাড়াও স্পেন এবং গ্রিসেও অবৈধভাবে প্রবেশ করেছেন বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশি। মানবিক কারণে এই অবৈধ অভিবাসীদের উদ্ধার করে নেয়া হচ্ছে বিভিন্ন আশ্রয়কেন্দ্রে।

তবে ইতালিতে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা বলছেন, অবৈধ পথে ইউরোপযাত্রা বন্ধ হওয়া উচিৎ। যারা এভাবে আসছেন তাদের নাগরিকত্ব পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

তারা জানান, গ্রীষ্মে সাগর শান্ত থাকে। এর সুযোগই নিচ্ছেন অবৈধ অভিবাসীরা। ছোট ছোট নৌকায় করে তারা আসছেন ইতালিতে, যা খুবই বিপজ্জনক পথ।

চলতি বছর শুধু ইতালিতেই এসেছেন ৮৯ হাজার ২৫৩ জন অবৈধ অভিবাসী। ইতালি সরকার অবৈধ অভিবাসী বন্ধে এরইমধ্যে বৈধভাবে শ্রমিক আনার ঘোষণা দিয়েছে। যার আওতায় ২০২৫ সাল নাগাদ সাড়ে চার লাখেরও বেশি শ্রমিক ইতালিতে আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।