ঢাকা ০৫:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিজ্ঞপ্তি :
সারাদেশের জেলা উপোজেলা পর্যায়ে দৈনিক স্বতঃকণ্ঠে সংবাদকর্মী নিয়োগ চলছে । আগ্রহী প্রার্থীগন জীবন বৃত্তান্ত ইমেইল করুন shatakantha.info@gmail.com // দৈনিক স্বতঃকণ্ঠ অনলাইন ও প্রিন্ট পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন ০১৭১১-৩৩৩৮১১, ০১৭৪৪-১২৪৮১৪

ধানক্ষেতের পানিতে ভাসছিল তমালের মরদেহ

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত সময় ০২:৩৩:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ অগাস্ট ২০২৩
  • / 84

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় ধানক্ষেতের পানি থেকে তানজিমুল আলম তমাল (২২) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৪ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের প্রামাণিকপাড়া থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


নিহত যুবক তানজিমুল আলম তমাল একই এলাকার জাহাঙ্গীর আলম বাবুলের ছেলে।


তানজিমুল আলম সৌখিন ফটোগ্রাফার ও দিনাজপুরের বীরগঞ্জ নির্বাচন অফিসে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার হিসেবে খণ্ডকালীন কাজ করতেন। তার ১৮ বছরের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক মেয়ে রয়েছে। তানজিমুলের বাবা জাহাঙ্গীর আলম সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসে কর্মরত বলে জানান স্থানীয়রা।

তানজিমুল আলমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে বলেন, রোববার (১৩ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার তানজিমুল বাসা থেকে বের হয়। বাসায় না ফেরায় তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও কেউ ফোন রিসিভ করছিল না। পরে রাত থেকেই তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করা হয়। এরপর সোমবার সকালে বাড়ির সামনে ধানক্ষেতের জমে থাকা পানিতে মরদেহ ভাসতে দেখে তাকে শনাক্ত করা হয়।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি বলেন, মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

এই রকম আরও টপিক

ধানক্ষেতের পানিতে ভাসছিল তমালের মরদেহ

প্রকাশিত সময় ০২:৩৩:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ অগাস্ট ২০২৩

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় ধানক্ষেতের পানি থেকে তানজিমুল আলম তমাল (২২) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৪ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের প্রামাণিকপাড়া থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


নিহত যুবক তানজিমুল আলম তমাল একই এলাকার জাহাঙ্গীর আলম বাবুলের ছেলে।


তানজিমুল আলম সৌখিন ফটোগ্রাফার ও দিনাজপুরের বীরগঞ্জ নির্বাচন অফিসে অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার হিসেবে খণ্ডকালীন কাজ করতেন। তার ১৮ বছরের বুদ্ধি প্রতিবন্ধী এক মেয়ে রয়েছে। তানজিমুলের বাবা জাহাঙ্গীর আলম সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাচন অফিসে কর্মরত বলে জানান স্থানীয়রা।

তানজিমুল আলমের বাবা জাহাঙ্গীর আলম ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে বলেন, রোববার (১৩ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার তানজিমুল বাসা থেকে বের হয়। বাসায় না ফেরায় তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও কেউ ফোন রিসিভ করছিল না। পরে রাত থেকেই তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করা হয়। এরপর সোমবার সকালে বাড়ির সামনে ধানক্ষেতের জমে থাকা পানিতে মরদেহ ভাসতে দেখে তাকে শনাক্ত করা হয়।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


তিনি বলেন, মরদেহ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।